এক্সক্লুসিভ

সবকিছু পুড়ে ছাই, অক্ষত পবিত্র কোরআন!

মাঝে মাঝে অলৌকিক কিছু ঘটনা ঘটে যায়। এটা তেমনি একটি ঘটনা। শনিবার ( ২৮ এপ্রিল) ভোররাত পোনে ১টার দিকে স্থানীয় কিছু লোকজন ভোলা শহরের মনিহারী পট্টির একটি দোকানের সামনের অংশ ধোঁয়া উড়তে দেখে তাৎক্ষণিক তারা সদরের ফায়ার সার্ভিসকে ফোন করেন এবং মসজিদের মাইকে আগুন নিভানোর জন্য সকলে আহ্বান জানায়। কিছুক্ষণের মধ্যে আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে আশপাশের দোকানগুলোতে। আগুনের লেলিহান শিখা দ্রুত চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে।

এতে প্রায় ৪ ঘন্টার চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রনে আসে। এর মধ্যেই আগুনের লেলিহান শিখায় শহরের প্রাণকেন্দ্র মনিহারীপট্টি, চকবাজার, খালপাড়ার সড়কের শতাধিক দোকান ভস্মিভূত হয়। এসময় আংশিক ক্ষতিগ্রস্থ হয় শতাধিক দোকানঘর।

এ ঘটনায় দোকানের ভিতরের সব জিনিসপত্র আগুনে পুড়ে ছাই হলেও অক্ষত অবস্থায় পাওয়া গেছে পবিত্র মহাগ্রন্থ আল কুরআন। মনিহার পট্টির অগ্নিকাণ্ডের লেলিহান শিখা পোড়াতে পারেনি মহাপবিত্র গ্রন্থ আল কোরআন। ভস্মীভূত ছাইয়ের স্তূপ সরানোর সময় সম্পূর্ণ অক্ষত অবস্থায় এ পবিত্র গ্রন্থটি উদ্ধার করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আগুনের তাপে কোরআন শরীফের একধারের সাদা অংশ কিছুটা কালচে দাগ হয়েছে। তবে লেখার কোনো ক্ষতি হয়নি। আল্লাহর অশেষ মেহেরবানীতে পবিত্র এ গ্রন্থটি রক্ষা পেয়েছে। কোরআন শরীফটি একনজর দেখতে ভিড় করছে স্থানীয়রা। লোকজন আলোচনায় বলেন, পবিত্র আল কোরআন আল্লাহ স্বয়ং নিরাপদে রাখেন সেটারই প্রমাণ এটা।

এ অলৌকিক ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইজবুকে বেশ আলোচিত হয়েছে। অনেকে ছবিটিকে ফেইজবুক ফেইজে এবং ছবি তুলে সংরক্ষণ করেছেন।

Facebook Comments
Show More

Related Articles

Check Also

Close
Close